Breaking News
Home / চাঁপাই-নবাবগঞ্জ / জাতির জনকের সোনার বাংলায় ধর্মব্যবসায়ী আর ইতিহাস বিকৃতিকারীদের ঠাঁই হবে না : আলী আজম মুকুল এমপি

জাতির জনকের সোনার বাংলায় ধর্মব্যবসায়ী আর ইতিহাস বিকৃতিকারীদের ঠাঁই হবে না : আলী আজম মুকুল এমপি

ভোলা জেলা প্রতিনিধি  জহিরুল ইসলাম বাপ্পী: জাতির জনকের সোনার বাংলায় ধর্মব্যবসায়ী, স্বাধীনতাবিরোধী আর ইতিহাস বিকৃত কারীদের ঠাঁই হবেনা। ৩০ লাখ শহীদ আর এক সাগর রক্তের বিনিময়ে অর্জিত এদেশ তাদের জন্য নয়। বাংলার জনগণ আজ ঐক্যবদ্ধ। আজ বাঙালি জাতির সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল অর্জনের স্মৃতিবিজড়িত এবং পরাধীনতার শৃঙ্খল ভেঙে বুক ভরে নি:শ্বাস নেয়ার বিজয়ের দিন । বাঙালি জাতির আত্মগৌরবের দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্ব দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধে চূড়ান্ত বিজয় অর্জনের মধ্য দিয়ে বিশ্ব-মানচিত্রে অভ্যুদ্বয় ঘটে স্বাধীন ও সার্বভৌম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের। দুই লক্ষ মা-বোনের ত্যাগ-তিতিক্ষা এবং কোটি বাঙালির আত্মনিবেদন ও গৌরবগাঁথা গণবীরত্বে পরাধীনতার অভিশাপ থেকে মুক্তি পায় বাঙালি জাতি। ত্যাগের অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী এ জাতিকে কোন ধর্ম ব্যবসায়ীরা বিভ্রান্ত করতে পারবেন না। বুধবার বোরহানউদ্দিন উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভোলা ২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল এসব কথা বলেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুল রহমান এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় তিনি আরো বলেন, বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা ইতিহাসের মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দীর্ঘ আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাঙালি জাতিকে মুক্তির মহামন্ত্রে উজ্জীবিত করে স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের পথে এগিয়ে নিয়ে যান। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ’৪৮-এ বাংলা ভাষার দাবীতে গড়ে ওঠা আন্দোলনের পথ বেয়ে ’৫২-এর রাষ্ট্রভাষা আন্দোলন, ’৫৪-এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে জয়লাভ, ’৫৬-এর সংবিধান প্রণয়নের আন্দোলন, ’৫৮-এর মার্শাল ’ল বিরোধী আন্দোলন, ’৬২-এর শিক্ষা কমিশন বিরোধী আন্দোলন, ’৬৬-এর বাঙালির মুক্তির সনদ ৬-দফার আন্দোলন, ৬৮-এর আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা, ’৬৯-এর রক্তঝরা গণঅভ্যুত্থান, ৬-দফা ভিত্তিক ’৭০-এর ঐতিহাসিক সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন, ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’ খ্যাত কালজয়ী ঐতিহাসিক ভাষণ ও পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সর্বাত্মক অসহযোগ আন্দোলন প্রভূত ঘটনা প্রবাহের মধ্য স্বাধীনতা অর্জনের চূড়ান্ত লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ওঠে বাঙালি জাতি। ১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চের কালো রাত্রিতে পাকহানাদার বাহিনী কর্তৃক বাঙালির উপর নির্বিচারে গণহত্যা শুরু হলে ২৬শে মার্চের প্রথম প্রহরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে সশস্ত্র সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়ে বাঙালি জাতি। ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী জনযুদ্ধ শেষে ১৬ ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে (তৎকালীন রেসকোর্স ময়দান) হানাদার পাকিস্তানি বাহিনী যৌথবাহিনীর কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে এবং পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশ নামে নতুন রাষ্ট্রের অভ্যুদ্বয় ঘটে। এরপর তার নেতৃত্বে শুরু হয় উন্নয়নের উৎপাদন। দেশ যখন দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছিল তখন আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র ও দোসরদের সহযোগিতায় কতিপয় উৎশৃংখল সেনা সদস্য নির্মমভাবে হত্যা করেন জাতির পিতা তার পরিবারকে। তার রেখে যাওয়া স্বপ্নকে তারই কন্যা বিশ্ব মানবতার মা জননেত্রী শেখ হাসিনা বাস্তবায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে । এসমস্ত উন্নয়ন দেখে ধর্মব্যবসায়ী ,স্বাধীনতাবিরোধী ও ইতিহাস বিকৃত কারিদের আজ গাত্রদাহ শুরু হয়েছে। সকল ষড়যন্ত্র কঠিনভাবে মোকাবেলা করার জন্য জাতির জনকের সৈনিকদের আজ ঐক্যবদ্ধ হতে হবে মহান বিজয় দিবসে এটাই হোক আমাদের অঙ্গীকার। এর আগে সকাল ৭ ঘটিকার সময় উপজেলা চত্বরে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ও জাতির জনকেরস্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অপর্ন করেন আলী আজম মুকুল এমপি ,উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, বোরহানউদ্দিন পৌরসভা, উপজেলা আ’লীগ, বোরহানউদ্দিন থানা, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বোরহানউদ্দিন,উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বোরহানউদ্দিন মহিলা কলেজ সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক সংগঠন। এছাড়াও মহান মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবহুল স্মৃতি তুলে ধরেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সিদ্দিকুর রহমান (বাঘা সিদ্দিক ) ও মুক্তিযোদ্ধা আসমত আলী মিয়া। উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান এর সঞ্চালনায় সভায় আরোও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, পৌর মেয়র আলহাজ্ব রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি জসিম উদ্দিন হায়দার, বোরহানউদ্দিন থানা ইন-চার্জ মাজাহারুল আমিন, ভাইস চেয়ারম্যান রাসেল আহমেদ মিয়া, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাহফুজ ইয়াসমিন প্রমূখ। পরে শিশুদের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন আলী আজম মুকুল এমপি।

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

গোমস্তাপুরে তোফাজ্জল হক মহিলা সালাফিয়্যাহ মাদরাসার উদ্বোধন 

‌উত্তম কুমার, গোমস্তাপুর সংবাদদাতা : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে অধ্যক্ষ মাওলানা মুহাম্মদ হক ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে তোফাজ্জল হক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *