Breaking News
Home / অন্যান্য / উন্মুক্ত জনতার কথা / রাজারহাটে ব্রিজ ও রেকর্ডি ড্রেরেং দখল করে বাড়ি নির্মাণ।। পানি বন্দি ১৫০ পরিবার

রাজারহাটে ব্রিজ ও রেকর্ডি ড্রেরেং দখল করে বাড়ি নির্মাণ।। পানি বন্দি ১৫০ পরিবার

রেজাউল হক, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার নাজিম খাঁন ইউনিয়নের সোমনারায়ান মৌজার ডাকাতপাড়া গ্রামের সরকারি রাস্তায় ব্রিজ এবং ড্রেরেং দখল করে বাড়ি নির্মাণ করায় প্রায় ১৫০ পরিবারের পানি বন্দি জীবন যাপন করছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগ যে ঐ ব্রিজ ও ড্রেরেং না থাকায় আমরা গত ১০ জুলাই ২০২০ইং থেকে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে চরম বিপাকে পানি বন্দি হয়ে জীবন যাপন করতেছি। আজ ঐ ব্রিজ ও ড্রেরেং থাকলে এই পানি বন্দি জীবন যাপন করতে হতো না।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা শুশিল চন্দ্র বর্মন ( ৭২) সদস্য ৮ জন, গনেশ চন্দ্র বর্মন (৬০) সদস্য ৬ জন, আশুতোষ রায় (৫৬) সদস্য ৩জন, মানিক চন্দ্র বর্মন (৫৫) সদস্য ৮ জন, দিনবন্দু রায়(৫০) সদস্য ৪ জন, নির্জন রায়(৫২) সদস্য ৪ জন, গনেশ চন্দ্র বর্মন (৬০) সদস্য ৬ জন এবং করেন্দ্রনাথ বর্মন (৬৫) সদস্য ৫ জন এই জমির পূর্ব মালিকের সাথে কথা বলে জানা যায়, ১৯৯৫ সালে ঐ ব্রিজ ও ড্রেরেংয়ের রেকর্ড হয়েছে। তাই এই এলাকার অনেকেরই ড্রেরেং না থাকায় পানি বন্দি জীবন যাপন ও জমিতে আবাদ শুবাদ করতে না পারার কারনে এই নাওথোয়া বিলের জমির মালিকগন বিপাকের মধ্যে আছে। ব্রিজ ও ড্ররেংটি দুরুত্ত সংস্কার করার জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন এবং অনুরোধ করেছেন এলাকাবাসী।

আলহাজ্ব আব্দুল হাকিম খন্দকারের
সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত বছরের ঐ ব্রিজের ড্রেরেং দিয়ে পানি যাওয়ার পর এই সোমনারায়ান মৌজার নাওথোয়া, ডাকাতপাড়া বিলের এক থেকে দুই ঘন্টার মধ্যে পানি নেমে গিয়েছিল। এখন ঐ ব্রিজ ও ড্রেরেংটি না থাকায়, এলাকায় ১৫০ টি পরিবারের পানি বন্দি জীবন যাপন করতে হচ্ছে এবং জমিতে ফসল ফেরাতে পারছেন না।

কৃষক তৈয়বুর রহমান(৫৫) বলেন, আমার নাওথোয়া বিলে এক একর জমিতে ফসল, ধান ও মাছ চাষ করি। কিন্তু ঐ ব্রিজটি না থাকায় পানি কোন ভাবেই কমতেছেনা। তাই আমি এই পানি বন্দি জমির উপর কোন ফসল ধান ফলাতে পারছিনা। সে জন্য খুব খতিগ্রস্ত হতে হচ্ছে। তাই সরকারের কাছে আবেদন ঐ ব্রিজ ও ড্ররেংটি আবার সংস্কার করার দাবি জানাচ্ছি।

পুর্ব মালিক করেন্দ্রনাথ বর্মন (৬৫) বলেন, ঐ ব্রিজটির সামনে যে ড্রেরেং এর জমির দাগ নম্বর ৪৩৯ এই জমির পাশ দিয়ে ড্রেরেংটি নির্মাণ ছিল। কিন্তু এখন ঐ ড্রেরেংয়ের উপরে বসত বাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করতেছেন।

রাজারহাট উপজেলার নাজিম খাঁন ইউনিয়নের সোমনারায়ন মৌজার ডাকতপাড়া গ্রামের ঐ ড্রেরেংয়ের পূর্ব জমির মালিক রেকর্ডি ড্রেরেং সহ ব্রিক্রি করেছেন। তার পাশের বাড়ির শ্রীমতী শুরুজি রানীর কাছে ব্রিক্রি করার পর ঐ ড্রেরেং নং ৪৩৯ দাগ নিজ দখলে নিয়ে মাটি ভরাট করে বাড়ি নির্মাণ করেছেন।

কৃষক মফিজুল হক জানান, আমি ৪০ শতাংশ জমিতে মাছ চাষ করে আসতেছি, এমনতো অবস্থায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে, আমার মাছের ঘেরের পাড় তলিয়ে সমস্ত মাছ বাহিরে চলে গিয়েছে।

তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার নাজিম খাঁন ইউনিয়নের নাওথোয়া বিলের পানি বৃদ্ধি হয়ে প্রায় ১৫০ টি পরিবার পানিবন্দি হয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছে।

পানিবন্দি দুর্গত এলাকার ইউসুফ আলীর কাছে জানা গেছে, নাওথোয়া বিলের পানি বৃদ্ধি হয়ে আমাদের মোজাহিদ পাড়া কবরস্থান টি পানির নিচে ডুবে যাচ্ছে এবং আমরা গত এক সপ্তাহ ধরে পানিবন্দি হয়ে পড়ে আছি। এখন পর্যন্ত সাংবাদিক ছাড়া কেউ আমাদের পাশে আসে নি, কোনে খোঁজ খবর ও নেয়নি। স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে অতিকষ্টে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিন কাটাচ্ছি। আরো বলেন ঐ ব্রিজ ও ড্ররেংটি দুরুত্ত সংস্কার করার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।

এবিষয়ে নাজিম খাঁন ইউপি চেয়ারম্যান জনাব আঃ মালেক পাটোয়ারী জানান, ব্রিজ ও ড্ররেংটি সম্পর্কে কিছু আমি জানিনা এবং ইউপি সদস্য আব্দুর রহমান বলেন, ব্রিজ ও ড্রেরেং এর একটি দাগ নাম্বার ছিল। এখন আছে কি না আমার জানা নেই। ব্রিজ ও ড্রেরেংটি গত ১০ নভেম্বর ২০১৮ইং সালে শ্রী পুশনাথ চন্দ্র বর্মন জমি বিক্রি করেছে। শুরুজি রানীর কাছে পরে শুরুজি রানী জমিতে বাড়ি করার পরিকল্পনা করে ড্রেরেংটিতে মাটি ভরাট করে নিজ দখলে নিয়ে বাড়ি নির্মাণ করেছেন।

এ বিষয়ে রাজারহাট উপজেলার ভুমি কর্মকর্তা আকলিমা বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঐ ব্রিজ ও ড্ররেংটি যদি সরকারি ভাবে রেকর্ডসহ এলাবাসী অভিযোগ করলে, আমরা সরকারি ভাবে বিষয় টি তদন্ত করে ব্রিজ ও ড্রেরেংটি নতুন করে সংস্কার করার জন্য চেষ্টা করবো।

পরে এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরে তালিনিম নিকট অবগত করা হলে তিনি জানান, ঐ এলাকার ব্রিজ ওড্রেরেংটির বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে ব্যাবস্থা নিবো।

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

ভোলার বোরহানউদ্দিনে এক সঙ্গে তিন নবজাতকের জন্ম

মোঃ জহিরুল ইসলাম বাপ্পী ভোলা জেলা প্রতিনিধি:ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার টগবী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের দফাদার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *