Breaking News
Home / অপরাধ / রাজশাহীতে নারীমদসহ ফুর্তি, এক চেয়ারম্যানকে আটকের পরে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ!

রাজশাহীতে নারীমদসহ ফুর্তি, এক চেয়ারম্যানকে আটকের পরে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ!

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীর চন্দ্রীমা থানার মেহেরচন্ডি রাবি চারুকলার উত্তর পাসে নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার ৫ নং বিশা ইউপির চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান মোল্লা ওই এলাকায় তার নিজ বাড়িতে রাতে তিনটি নারী ও মদ খেয়ে ফুর্তি করার সময় রাতে বাড়ি থেকে হাতে নাতে গ্রেপ্তারের পরে এক লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে আরএমপি চন্দ্রীমা থানায় মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয় পুলিশ বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে তিনটি নারী ও দুইটি মদের বোতলসহ তাকে আটক করে আরএমপি চন্দ্রীমা থানা পুলিশ। এসময় স্থানিয় একাধিক উপস্থিত মানুষের সামনে তাকে নারীসহ আটক করে নিয়ে যায় থানা পুলিশ বলে জানিয়েছেন স্থানিয় প্রতিবেশিরা।

 

স্থানিয়রা জানান, নওগাঁ জেলার আত্রাই থানার ৫ নং বিশা ইউপির চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান বেশ কিছু দিন আগে রাজশাহী চন্দ্রীমা থানা মেহেরচন্ডি এলাকায় নতুন বাড়ি করেন। আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যানের রাবি চারুকলা উত্তর পাসে মেহেরচন্ডি ওই বাড়িতে তিনটি নারী নিয়ে ফুর্তি করছিলো রাতে। বিষটি প্রতিবেশীরা বুঝতে পেরে চন্দ্রীমা থানা পুলিশে খবর দিলে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩ টার দিকে থানা পুলিশের একটি টিম ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যানের সাথে থাকা তিনটি যুবতী নারী ও ২ টি বিদেশী মদের বোতলসহ তাকে হাতে নাতে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করার সময় ও তাদের পুলিশের গাড়িতে তুলে নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকার একাধিক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। পরে শুক্রবার দুপুরে থানা পুলিশ কে এক লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে ও লিখিত মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান। এর আগেও মাঝে মাঝে ওই বাড়িতে নারী ও মদ নিয়ে ফুর্তি করতেন চেয়ারম্যান বলে স্থানিয় প্রতিবেশিরা জানান।

 

নাম প্রকাশ না করা শর্তে আত্রাই বিশা ইউপির একাধিক আওয়ামী লীগ নেতারা আভিযোগ করে সাংবাদিকদের জানান, আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে দুদকে তার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম ও দূর্নীতির লিখিত অভিযোগ দুদকের চেয়ারম্যান বরাবর প্রদান করেও কোন লাভ হয়নি। তার বিরুদ্ধে ভিক্ষুকের সরকারি চাল আত্নসাত, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, নদী, নালা, খাল বিলসহ সরকারি সম্পদ দখল করার একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী।

 

আরো জানান, অনিয়ম ও দূর্নিতি করে কোটি কোটি টাকার সম্পদ অবৈধ ভাবে গড়েছে চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মোল্লা। এলাকার অর্থ আত্নসাত করে কিছু দিন আগে রাজশাহী নগরীর চন্দ্রীমা থানা মেহেরচন্ডি এলাকায় কোটি টাকা দিয়ে সম্পদ করেছেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে সেই বাড়িতে তিনটি নারী ও মাদসহ পুলিশের হাতে আটকের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মাঝে এ নিয়ে নানা কল্পনা ও আলোচনা হচ্ছে তাকে নিয়ে।

 

 

এ বিষয় আব্দুল মান্নান চেয়ারম্যানের মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, তেমন কিছু না। একটু ভুল বোঝা বোঝি হয়েছিল। তবে তিনটি নারী ও মদসহ পুলিশের হাতে আটক হওয়ার বিষয় জানতে চাইলে তিনি অস্বীকার করেন।

 

আরএমপি চন্দ্রীমা থানার ওসি মুনিরুজ্জামান মুনির বলেন, চেয়ারম্যান মাঝে মাঝে ওই বাড়িতে এসে শয়তানি করে। স্থানিয় প্রতিবেশিরা এর আগেও দেখেছেন তাকে নারী নিয়ে ওই বাড়িতে প্রবেশ করতে।

ওসি আরো বলেন, আব্দুল মান্নান আত্রাই উপজেলার বিশা ইউপির রানিং চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তাদের কে জানিয়ে তার কাছে থেকে লিখিত মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

রাজশাহীতে প্রথম দিনই সাড়া ফেলেছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক: গত বছর চাহিদা না থাকায় তেমন সাড়া মেলেনি ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *