Breaking News
Home / অন্যান্য / রাজধানী / প্রাণের ক্যাম্পাস ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি

প্রাণের ক্যাম্পাস ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি

ডিআইইউ প্রতিনিধি:স্বপ্ন পূরণের অন্যতম প্রধান মাধ্যম হলো বিশ্ববিদ্যালয়। এখানেই জীবনটা শুরু হয় নব উদ্যমে, নব আঙ্গিকে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা বিভিন্ন কালচারের ছেলেমেয়েদের সাথে মিশে, তাদের ধ্যান-ধারণা ও নতুন নতুন অভিজ্ঞতার সাথে পরিচিত হয়ে শুরু হয় বিশ্ববিদ্যালয় জীবন।

অপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, গাছ-গাছালিতে পরিপূর্ণ সবুজের সমারোহ, লাল শাপলাভর্তি পুকুর, সুবিশাল মাঠ, সুদর্শন শহীদ মিনার, অরণ্য সজ্জিত সুউচ্চ দালানের সমন্বয়ের এক অনন্য ক্যাম্পাস  ” ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি  সৃষ্টিকর্তা প্রদত্ত এত সুন্দর, মনোরম আর মায়াবী পরিবেশে ঘেরা  আমাদের এই প্রাণের ক্যাম্পাস।

ঢুকতেই যে জিনিসটি  আপনার  মন  আগে কাড়বে, তা হলো ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে ফুলের গাছগুলো। সারি সারি বাহারি রঙের ফুলগুলো যেন হাতের ইশারায় আপনাকে ডাকবে। আপনি মুগ্ধ হয়েই বলে উঠবেন- ঢাকার বাড্ডায় সবুজ বেষ্টিত মুক্ত পরিবেশে গড়ে উঠেছে ডিআইইউ এর স্থায়ী ক্যাম্পাস! খোলা মাঠ আর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য নিয়ে মনোমুগ্ধকর একটি  পরিবেশ আকর্ষনীয়  করে তুলেছে প্রতিষ্ঠানকে। যা ঢাকার বুকে খুবই বিরল।শীতল ও প্রাণ জুড়ানো  পরিবেশ সর্বদাই  বিরাজমান প্রতিষ্ঠানটিতে।

দূষিত রাজধানীতে সবুজে ঘেরা বিশুদ্ধ বাতাসে পরিপূর্ণ শান্ত ও ছোট্ট ক্যাম্পাস আমারটি। ক্লাস, প্রাকটিক্যাল, অ্যাসাইনমেন্ট  ও কো- কারিকুলার অ্যাক্টিভিটিস নিয়ে সাড়া বছর  ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে কাটে । সবসময় মনে হয় কবে ছুটি পাব! কিন্তু এই আনন্দ কেন যেন বাড়ি যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্তই থাকে। বাড়িতে পা রাখার পর মনে হয় কি যেন একটা নেই, কিছু একটা যেন খুব মিস করছি।

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের হরেক রকমের আড্ডাগুলো ক্যাম্পাসকে করে রাখে প্রাণোচ্ছল। দলবেঁধে হোটেলে খাওয়া শেষে মামার  দোকানে চায়ের আড্ডা, বিকেলে হাঁটতে হাঁটতে রহিম ভাইয়ের দোকানের গরম গরম পিয়াজু, পুরি, সমুচা খাওয়া। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসতেই বৈতালী রেস্টুরেন্টে কফি পান, রাত আরেকটু গভীর হলে হোস্টেলের বারান্দায়  বসে গিটার নিয়ে সবাই একসাথে গলা ছেড়ে গান গাওয়া, এসকল কিছুর মাঝে রয়েছে ভ্রাতৃত্বের বন্ধন আর ভালবাসার মোহতা।

ক্যাম্পাসটি যেন শিল্প, সাহিত্য, বন্ধুত্ব, আড্ডা ও ভালবাসার মায়ায় ঘেরা। গানে গানে মুখরিত হয় তারুণ্যের প্রাণোচ্ছলতা। যৌবনের উচ্ছলতায় সিক্ত ক্যাম্পাসের এই সকল শিক্ষার্থীরা নির্দিষ্ট একটি গতির সীমাবদ্ধতা মানতে নারাজ। গান, নাচ, বিতর্ক, আড্ডা, খেলাধুলা আর মতের পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তির মাতামাতিতে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে সর্বদা  বিরাজ করে সাংস্কৃতিক আবহ। কেউ পড়াশোনায় মনোযোগী, কেউ রাজনীতি-সংগঠন করছে, কেউ বা মেতে আছে প্রিয় মানুষটিকে নিয়ে একটু কোলাহলমুক্ত ভালবাসার অন্য ভুবনে, কেউ বা আবার এসব কিছু বাদে আড্ডা দিতেই ব্যস্ত।

মাহমুদুর রশীদ
লেখক-ঃ শিক্ষার্থী সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট
ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনির্ভাসিটি

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

রাজশাহীতে প্রথম দিনই সাড়া ফেলেছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক: গত বছর চাহিদা না থাকায় তেমন সাড়া মেলেনি ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *