Breaking News
Home / অন্যান্য / কোভিড-১৯ / নগরীতে করোনা টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হচ্ছে ২৬ জুলাই

নগরীতে করোনা টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হচ্ছে ২৬ জুলাই

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের উদ্যোগে মহানগরীতে ওয়ার্ড পর্যায়ে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম সফল করতে আগামী ২৬ জুলাই থেকে একযোগে নগরীর ৩০টি ওয়ার্ড কাউন্সিলর কার্যালয়/নির্ধারিত স্থানে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু করছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন।
করোনার টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম বাস্তবায়নে রোববার দুপুরে নগর ভবনের সিটি হল সভা কক্ষে কাউন্সিলরদের সাথে মতবিনিময় করেছেন রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন।
সভায় প্রধান বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, তৃণমুল জনগণের সেবার মূল কেন্দ্র ওয়ার্ড কার্যালয়। ওয়ার্ড কার্যালয়ের বর্তমান সেবার সাথে করোনার টিকা রেজিস্ট্রেশন ও টিকাদান কার্যক্রম যুক্ত করা হচ্ছে। এর জন্য ৩০টি ওয়ার্ডে প্রশিক্ষণ দিয়ে জনবল প্রস্তত করা হচ্ছে। ওয়ার্ড কার্যালয় অথবা সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের নির্ধারিত স্থানে ৩৫ বছরের উর্ধ্বে সকল নাগরিক ও সম্মুখসারীর বিভিন্ন ক্যাটাগরির ব্যক্তিরা জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে নিয়ে আসলে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। রেজিস্ট্রেশন শেষে ওয়ার্ড পর্যায়ে সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্যকর্মীদের মাধ্যমে টিকা প্রদান করা হবে। আমরা রাজশাহী মহানগরীর সকল নাগরিককে ভ্যাক্সিনেশনের আওতাভুক্ত করতে চাই।
মেয়র আরো বলেন, সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচিতে (ইপিআই) পরপর নয়বার দেশসেরা হয়েছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমও সারাদেশে প্রসংশিত। করোনা মহামারীতে মানুষকে বাঁচাতে করোনার টিকা গ্রহণের কোন বিকল্প নেই। বাংলাদেশ সরকার বিভিন্ন দেশ থেকে টিকা সংগ্রহ করছে। রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের জন্য করোনার টিকার পৃথক বরাদ্দ আনা হচ্ছে। আগামী ২৬ জুলাই থেকে নিজ নিজ ওয়ার্ডে করোনার টিকার রেজিস্ট্রেশন করার জন্য নগরবাসীকে অনুরোধ করছি।
রাজশাহীর বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হাবিবুল আহসান তালুকদার বলেন, ইপিআই কার্যক্রমে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সারাদেশে মডেল হিসেবে স্বীকৃত। সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ড পর্যায়ে করোনার টিকার রেজিস্ট্রেশন ও টিকাদানের যে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে, তা অনেক কার্যকর হবে। সকলের সহযোগিতায় রাজশাহীর মেয়র মহোদয়ের নেতৃত্বে করোনার টিকাদানে সারাদেশের মধ্যে মডেল হবে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। ইতোমধ্যে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের জন্য ৩৬ হাজার ডোজ মর্ডানার টিকা পাওয়া গেছে। আগামীতে আরো বেশি টিকা পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।
মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন রাসিকের স্বাস্থ্য, শিক্ষা পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্যরক্ষা স্থায়ী কমিটির সভাপতি ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নুরুজ্জামান টুকু। সভামঞ্চে উপবিস্ট ছিলেন রাসিকের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, প্যানেল মেয়র-২ ও ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রজব আলী, প্যানেল মেয়র-৩ ও ১নং সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর তাহেরা খাতুন মিলি। মহানগরীতে কোভিড-১৯ মাইক্রোপ্ল্যান উপস্থাপন করেন রাসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম। সভায় অংশগ্রহণ করে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মতামত প্রদান করেন। ওয়ার্ড পর্যায়ে টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রমের উদ্যোগ গ্রহণ করায় রাসিক মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান কাউন্সিলরবৃন্দ।
SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

রাবির বাসে বাড়ি ফিরলেন দেড় হাজার শিক্ষার্থী

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক:রাবির বাসে বাড়ি ফিরলেন দেড় হাজার শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে একে একে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *