Breaking News
Home / বিনোদন / দুর্যোগের দিনে একসাথে সমবেত হলেন শিল্পীরা

দুর্যোগের দিনে একসাথে সমবেত হলেন শিল্পীরা

দুর্যোগের দিনে এক হলেন শিল্পীরা

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট দুর্যোগে সচেতনতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে সারা দেশের মানুষের মতো শিল্পীরাও নিজেদের গৃহবন্দি করেছে। তবে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখলেও অন্তর্জালে তাদের এক প্লাটফর্মে যুক্ত করতে উদ্যোগী হয়েছেন গানবাংলা টেলিভিশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সংগীত পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপস।

প্রায় পাঁচশতাধিক শিল্পীদের নিয়ে ‘গানবাংলা পরিবার’ নামে সৃষ্ট ফেসবুক গ্রুপটিতে সকল শিল্পী সাম্প্রতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় একতাবদ্ধ হয়েছেন। সে ঐক্যের জানান দিতেই বৃহস্পতিবার গানবাংলা টেলিভিশনের ফেসবুক পেজে লাইভ আড্ডায় যুক্ত হন শিল্পীরা।কৌশিক হোসেন তাপসের সঞ্চালনায় এ আড্ডায় উপস্থিত হয়ে শিল্পীরা দুর্যোগ মোকাবেলায় সাধারণ মানুষের প্রতি সচেতনতামূলক বক্তব্য রাখার পাশাপাশি দুর্যোগকালীন ও দুর্যোগপরবর্তীতে শিল্পীদের কাজের সুযোগ সৃষ্টিসহ বর্তমান ও আসন্ন নানা সংকট নিয়ে খোলামেলা আলোচনায় যুক্ত হন।

আলোচনায় অংশ নেন গীতিকার আসিফ ইকবাল, শওকত ইসলাম, ব্যান্ডতারকা হামিন আহমেদ, সংগীতশিল্পী ফাহমিদা নবী, মেজবাহ আহমেদসহ এ প্রজন্মের আরেফিন রুমি, শান, সিঁথি সাহা, লুইপা, ঐশি, রেশমি, অদিত, ইলিয়াসসহ আরো অনেকেই।

শিল্পীরা বলেন, করোনাভাইরাসের মতো দুর্যোগ কেটে গেলেও আরো অনেকদিন আমরা ভাঙা অবস্থায় থাকবো। শ্রোতারা হয়তো অনিশ্চয়তায় থাকবেন একসাথে জড়ো হয়ে কনসার্টে উপস্থিত হওয়া নিয়ে। এই সময়টায় আমাদের কাজের সুযোগ ও আয় অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। ব্যক্তিগত ও সামগ্রিক এমন দুর্যোগ সামাল দিতে ও সংকটের স্থায়ী সমাধানের জন্য সব শিল্পীর মধ্যে ঐক্য ও একটি নিদৃষ্ট প্লাটফর্মের কোনো বিকল্প নেই।আলোচনায় উঠে আসে শিল্পীদের আয় নিশ্চিত করতে নিজস্ব স্ট্রিমিং প্লাটফর্মের প্রয়োজনীয়তার কথা। পাশাপাশি নিয়মিত পারফর্মেন্স নিশ্চিত করতে দেশের বিভিন্ন স্থানে অডিটোরিয়াম বরাদ্দ ও অনলাইন টিকিটিংয়ের মাধ্যমে নিয়মিত কনসার্টের মাধ্যমে আয়ের পথ উন্মোচনের বিষয়টিও। এ ছাড়া শিল্পীদের ইউটিউবকেন্দ্রিক ভিউর দৌড়ে না নেমে শিল্পীদের দূরদর্শী হওয়ারও আহ্বান জানানোর পাশাপাশি শিল্পীদের নিজেদের মূল্য তৈরিতেও সচেতন হতে হবে বলে বক্তারা মন্তব্য রাখেন।

আলোচনায় লন্ডন থেকে যুক্ত হন ফাহমিদা নবী ও নিজ বাসভবন থেকে যুক্ত হন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট দুর্যোগ নিয়ে সরকারের প্রস্তুতির নানাদিক তুলে ধরার পাশাপাশি শিল্পীদের জন্য দুর্যোগপরবর্তীকালীন সময়ে বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণের প্রতিশ্রুতিও দেন তিনি।

তিনি বলেন, নেটফ্লিক্সের মতো বাংলাদেশের ডিজিটাল প্লাটফর্মগুলো কেন নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় দাঁড়াতে পারবে না? সে ব্যাপারে আমরা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই সকলে মিলে একটি উদ্যোগ গ্রহণ করবো।

তিনি জানান, শিল্পীদের রয়েলিটি নিশ্চিত করতে ইন্টালেকচুয়াল প্রোপারটি রাইট রেজিস্ট্রেশন ’ল নিয়ে ইতিমধ্যেই শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সম্প্রতি তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আইসিটি মন্ত্রণালয়।

লাইভ ভিডিওটি সম্প্রচারে সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী জুয়েল মোর্শেদ। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত গানবাংলা টেলিভিশনের ফেইসবুক পেইজে প্রচারিত হবে এ লাইভ আড্ডা।

 

 

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

বৃক্ষসখা সুন্দরগঞ্জ’র উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ

গাইবান্ধা সংবাদদাতা শেখ মোঃ সাইফুল ইসলাম: গাছ লাগাই, প্রকৃতি সাজাই, পরিবেশ বাঁচাই, এই শ্লোগানকে ধারণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *