Breaking News
Home / অন্যান্য / উন্মুক্ত জনতার কথা / দুর্ভোগের বোঝা মাথায় নিয়েও ঘরে ফিরছে মানুষ

দুর্ভোগের বোঝা মাথায় নিয়েও ঘরে ফিরছে মানুষ

রোমান আহমেদ, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জজে গণপরিবহন বন্ধের পাশাপাশি পণ্যবাহী পরিবহনে ও যাত্রী পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা । এমন অবস্থায় সীমাহীন দুর্ভোগের বোঝা মাথায় নিয়েও নাড়ীর টানে ঘরে ফিরছে মানুষ। করোনা আতংক উপেক্ষা করে সিএনজি, অটোরিকশা, ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাসে করে এক ষ্টেশন থেকে আরেক ষ্টেশনে কেটে কেটেই বাড়ি আসছেন শ্রমজীবী মানুষগুলো।
শনিবার (২৩ মে) দুপুর থেকে সন্ধা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম সংযোগ মহাসড়কের কড্ডার মোড়, নলকা ও হাটিকুমরুল মোড়ে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ঢাকা সহ বিভিন্ন জেলা থেকে ফেরা যাত্রীদের দুর্ভোগের চিত্র। অসংখ্য যাত্রীদের পায়েহেটে আসতেও দেখা গেছে।

দয়াল চন্দ্র, দিলীপ রায়, মনোরঞ্জন, অমুল্য রায়সহ ২০/২৫ জন কৃষি দিনমজুর কড্ডার মোড় এলাকায় ট্রাক বা অন্য কোন সুলভ ভাড়ার যানবাহনের জন্য অপেক্ষা করছিল। রংপুর এলাকার এসব দিনমজুর কুমিল্লা থেকে ধান কাটার কাজ শেষে বাড়ির উদ্দেশ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেন। একটি বাসে তারা যাত্রা শুরু করেন, বঙ্গবন্ধু সেতুর কাছে আসার পর পুলিশ বাসটিকে আটকে দেয় । এতে চরম সমস্যায় পড়েছে এসব হতদরিদ্র দিনমজুরেরা।

ঢাকার একটি গার্মেন্টসের কোয়ালিটি ইনচার্জ লুৎফর রহমান। একটি মাইক্রোবাসে ১৫ জন গাদাগাদি করে কড্ডার মোড়ে এসেছেন তিনি। তার কাছে ভাড়া নেওয়া হয়েছে ১২০০ টাকা।
এই প্রতিবেদককে তিনি বলেন ১৫ জনের মধ্যে নাটোর, বনপাড়ার লোকও রয়েছে মাইক্রো চালক ইচ্ছেমত ১২০০ থেকে ২০০০ টাকা পর্যন্ত ভাড়া আদায় করেছে।
টাংগাইল থেকে আসা কৃষি দিনমজুর বেলাল, সোহেল, ইয়াকুব ও সোলেমান বলেন, ৮ দিন টাংগাইলে ধানকাটার কাজ করে তারা ৩০০০ টাকা আয় করেছেন । সিএনজি, অটোরিকশা করে সেতুর পুর্বপাড় পর্যন্ত আসতে পেরেছে তারা এরপর নৌকায় করে যমুনা নদী পার হয়ে কড্ডা পর্যন্ত আসতে তাদের খরচ হয়েছে ৩০০ টাকা, তাড়াশ পর্যন্ত যেতে না যানি আর কত খরচ হবে।
পোশাক কর্মি সালেহা, সাহিদা ও জিন্নাহ আলীসহ অনেকেই বলেছেন ঢাকা থেকে কখনো মিশুকে, কখনো পিক-আপ আবার কখনও সিএনজিতে করে সেতু পর্যন্ত এসেছেন তারপর নৌকায় করে নদী পাড় হয়েছেন। ঢাকা থেকে আসা এসব ঈদযাত্রীরা বলেন করোনা আতংক থাকলেও আমাদের বাড়ি যেতেই হবে। সল্প পরিসরে হলেও স্বজনদের নিয়ে ঈদ করতে হবে।

এ বিষয়ে সিনিয়র পুলিশ সুপার ( সেতু পশ্চিম ও কামারখন্দ) সার্কেল অফিসার শাহিনুর আলম জানান, সরকারি নির্দেশনায় মহাসড়কে দায়িত্ব পালন করছে পুলিশ। গণপরিবহন সম্পুর্নরুপে বন্ধ আছে। ট্রাকেও যাত্রী পরিবহনে নিষেধাজ্ঞা আছে তবে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস ও মোটর সাইকেল চলাচলে কোন বাধা নেই।

 

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

রাজশাহীতে প্রতারক ও মানব পাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য আটক

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহী নগরীতে প্রতারক ও মানব পাচারকারী চক্রের তিনজন সক্রিয় সদস্যকে গ্রেফতার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *