Breaking News
Home / অপরাধ / ডাংরারহাটে সরকারী রাস্তা দখল করে ঘর নির্মাণের কাজ চলছে

ডাংরারহাটে সরকারী রাস্তা দখল করে ঘর নির্মাণের কাজ চলছে

মোঃ রেজাউল হক,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বিদ্যানন্দ ইউনিয়নে ডাংরার হাট বাজারের চৌরাস্তা মোড় হতে উত্তরপূর্ব পার্শ্বের রাস্তাটি দীর্ঘদিন থেকে ঘর তুলে দখল করে আসছে স্থানীয় প্রভাবশালী মোস্তাফিজার রহমানের ভাতিজা কামরুজ্জামান। রাস্তাটি এমনিতেই সংকীর্ণ তার উপরে দুপাশে গড়ে উঠেছে ব্যবসায়িক দোকান পাট।ঘরটি দীর্ঘদিন থেকে পরিত্যাক্ত থাকলেও নতুন করে সংস্কার করা হচ্ছে।ঘরটি ঐ রাস্তায় করা হলে সাধারণ মানুষজনের চলাফেরা করা দুরহ হয়ে যাবে।বিশেষ করে ট্রাক ট্রলি যাওয়া আসার সুযোগেই থাকবে না।স্থানীয় বাসিন্দা ও বাজার কমিটির সভাপতি শরিফুল ইসলাম বলেন ওরা যা করবে সব ন্যায় প্রতিবাদ করলে মামলা দিয়ে হয়রানি করাবে,তাই সাধারণ মানুষজন কিছু বলেনা। বিদ্যানন্দ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম বসুনিয়া বলেন মোস্তাফিজার রহমান ভূমি অফিসে চাকুরী করার সুবাদে বিশাল নেটওয়ার্ক তৈরি করেন,শুধু ওনার অন্যের জমির উপর চোখ।এই ডাংরার বাজারের প্রায় অর্ধেক সরকারী জায়গা তাদের দখলে।মোস্তাফিজার রহমান নিজেই খাস জমি দখল করে গড়ে তুলেছেন প্রতিবন্ধী স্কুল,সেই জায়গায় সরকারী আমিন এসে সার্ভেয় করে প্রতিবন্ধী স্কুলের ভিতরে লাল ফ্লাগ স্থাপন করে গেছেন।তিনি আরও বলেন এই বাজারের একটি ইউনিয়ন পরিষদের জায়গা আছে সেটাও দখল করে আছেন তার আপন ভাতিজা মহসিন আলী।শুধু ভাতিজারাও নয় সমান তালে ভাগিনারাও সরকারী জায়গার উপর অবৈধ দোকানঘর নির্মাণ করে আছেন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বলেন এই মোস্তাফিজার একজন বড় বাপের দুর্নীতিবাজ,সরকারী জায়গা দখল করে প্রতিবন্ধী স্কুলে তুলে অনেককে চাকুরী দেওয়ার কথা বলে হাতিয়ে নিয়েছেন প্রায় অর্ধকোটি টাকা।তাই তিনি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট তদন্ত দাবী করেন। এবিষয়ে উপজেলা সহকারী ভূমি কমিশনার আকলিমা বেগমের সাথে কথা হলে তিনি বলেন বিষয়টি খোজখবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

বাঞ্ছারামপুরে নেশার টাকা না পেয়ে পেটে কাঁচি ঢুকিয়ে মা কে হত্যা

আবু রায়হান চৌধুরী : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে মাদক সেবনের টাকা না দেওয়ায় মেয়ের কাঁচির আঘাতে মা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *