Breaking News
Home / অন্যান্য / উন্মুক্ত জনতার কথা / কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় ১ হাজার শিক্ষক কর্মচারীর মানবেতর জীবন 

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় ১ হাজার শিক্ষক কর্মচারীর মানবেতর জীবন 

 কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:ভেড়ামারার প্রতিভা মডেল একাডেমী স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ফিরোজ মাহমুদ। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ বেতন বাবদ যে অর্থ আদায় হয়, তা দিয়েই বিদ্যালয়ের ১৪ জন শিক্ষক কর্মচারীর বেতন সহ অনান্য সুযোগ সুবিধা তিনি দিতেন। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রামণ রোধে স্কুল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন তিনি। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফিস আদায় করতে না পারায় নিজের আয় বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি শিক্ষক কর্মচারীর বেতনও বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে বিদ্যালয়ের ১০ জন শিক্ষক এবং ৪ কর্মচারী অত্যান্ত মানবেতর জীবন যাপন করছে। একই অবস্থা ভেড়ামারায় ৫২টি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের প্রায় ১হাজার  শিক্ষক কর্মচারীর। যা দেখার কেউ নেই।
কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় রয়েছে সম্পূূর্ণ বেসরকারি উদ্যেগে নিজস্ব অর্থায়নে ৫২টি কিন্ডারগার্টেন স্কুল। এসব স্কুলে লেখাপড়া করছে প্রায় ১৮ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী। শিক্ষক কর্মচারী রয়েছে প্রায় ১ হাজার। উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষার প্রায় ৩০ভাগ চাহিদা পূরণ করে এ সব কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো। করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে বর্তমানে বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো। বন্ধ রয়েছে শিক্ষার্থীদের বেতন আদায়ও। অথচ শিক্ষার্থীদের মাসিক বেতনের ওপরই নির্ভর করেই শিক্ষকদের বেতন ও বাড়িভাড়া। এমন অবস্থায় চরম বিপাকে পড়েছে বিদ্যালয় গুলো। বিদ্যালয়ে পাঠদান ছাড়াও শিক্ষকরা দু একটি টিউশনী করে যে যতসামান্য আয় করতেন সেটাও এখন পুরোপুরি বন্ধ। ফলে অর্থাভাবে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক ও কর্মচারীরা।কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের ভেড়ামারা উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ও প্রতিভা মডেল একাডেমী স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক ফিরোজ মাহমুদ জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণ রোধে অনান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ন্যায় কিন্ডারগার্টেন স্কুল গুলোও বন্ধ। শিক্ষার্থীদের বেতনের উপরই নির্ভর করে শিক্ষকদের বেতন দেওয়া হয়। কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে বেতন আদায় করা বন্ধ। এ অবস্থায় শিক্ষকদের বেতন দিতে পারেনি। একই অবস্থা উপজেলার ৫২টি কিন্ডার গার্টেন স্কুলেই। ফলে অর্থাভাবে চরম মানবেতর জীবন যাপন করছে উপজেলার প্রায় ১হাজার শিক্ষক কর্মচারী।বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন এসোসিশেনের মহাসচিব এবং ভেড়ামারা আলহেরা একাডেমী’র অধ্যক্ষ হাসানুজ্জামান খসরু জানিয়েছেন, কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষার্থীদের বেতন থেকেই শিক্ষকদের বেতন দেওয়া হয়ে থাকে। বিদ্যালয়ের পাশাপাশি শিক্ষকরা টিউশনি করে কোন রকম জীবিকা নির্বাহ করতো। কিন্তু বর্তমানে বিদ্যালয় এবং টিউশনি দুটোই বন্ধ। তাদের আয় বন্ধ হয়ে অত্যান্ত মানবেতর জীবন যাপন করছে। তিনি বলেন, প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোও বর্তমানে বন্ধ। কিন্তু তারা বেতন পাচ্ছে। কিন্ডারগার্টেনের শিক্ষকরা পাচ্ছে না। অথচ জাতি গঠনে কিন্ডার গার্টেনের শিক্ষকদের ভূমিকা অত্যান্ত গুরুত্বর্পূন। তিনি বলেন, কিন্ডারগার্টেন’র শিক্ষকদের বাঁচাতে এখনই সরকারের কার্যকরী ভূমিকা পালন করা উচিত।  বর্তমান সমস্যা  মুহুর্তে শিক্ষকদের প্রনোদনা এবং নগদ অর্থ সহায়তা দেওয়ার জোর দাবী জানান তিনি।
SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

রাজশাহীতে প্রথম দিনই সাড়া ফেলেছে ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক: গত বছর চাহিদা না থাকায় তেমন সাড়া মেলেনি ক্যাটল স্পেশাল ট্রেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *