Breaking News
Home / অন্যান্য / কোভিড-১৯ / কুষ্টিয়ায় নতুন করে আরো ১৯,জন করোনায় আক্রান্ত। 

কুষ্টিয়ায় নতুন করে আরো ১৯,জন করোনায় আক্রান্ত। 

শাহীন আলম লিটন,কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ায় নতুন করে আরো ১৯, জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, সোমবার  (১৫,জুন) সন্ধায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাব থেকে জেলার ১৩৪,টি নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গেছে যার মধ্যে ১১৫ ,টি নেগেটিভ ও ১৯,টি পজেটিভ।আজ চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন দুইজন, মোট চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন ৫ জন।
নতুন আক্রান্তের মধ্যে কুমারখালী উপজেলাতে ৪ জন, কুষ্টিয়া জেলার সদর উপজেলায় ১২ জন, দৌলতপুরে ৩ জন । সদর উপজেলায় আক্রান্তদের মধ্যে সোনালী ব্যাংকের ৩ জন,স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালের একজন, চৌরহাসের দুইজন,জুগিয়াতে একজন, খাজানগরের একজন, কাটাইখানা মোড়ের দুইজন, হাউজিং এর দুইজন রয়েছেন। দৌলতপুরে আল্লারদর্গার দুইজন ও বৈরাগীর চরে একজন আক্রান্ত হয়েছে। কুমারখালী উপজেলায় আক্রান্ত ৪ জনের ঠিকানা কুমারখালী থানা, পুকুরিয়া, পুটিয়া (চড়াইকোল) ও নন্দলালপুর।
আজকে সনাক্তদের মধ্যে ২ জনের বয়স ১-১০ বছরের মধ্যে, ৪ জনের বয়স ২১- ৩০ বছর ,৮ জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, ১ জনের বয়স ৪০-৫০ বছরের মধ্যে এবং ২ জনের বয়স ৫১-৬০, ২ জনের বয়স ৭০-৮০ বছরের মধ্যে।
আজকে নতুন সনাক্ত ১৫,জন,পুরুষ ও ৪,জন নারী। উপজেলা ভিত্তিক রোগী সনাক্ত
দৌলতপুর উপজেলায় ৩৩,জন। ভেড়ামারা উপজেলায় ৩৫, জন। মিরপুর উপজেলায় ২০, জন।সদর উপজেলায় ১০৭,জন।কুমারখালী উপজেলায় ৩৪,জন। খোকসা উপজেলায় ১৩,জন।
সুস্থ হয়ে ছাড় পেয়েছেন মোট ৫০, জন।উপজেলা ভিত্তিক সুস্থ ৪৮, জন এবং বহিরাগত সুস্থ ২,জন।
দৌলতপুর উপজেলায় ১৩,জন।ভেড়ামারা উপজেলায় ৬, জন।মিরপুর উপজেলায়  ১০,জন। সদর উপজেলায় ৮,জন।কুমারখালী উপজেলায়  ১০,জন। খোকসা উপজেলায় ১,জন। বর্তমানে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ১৮৫, জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৬, জন।খুলনায় চিকিৎসাধীন  ৩, জন।
কুমারখালী উপজেলায় মৃত ১, জন।
মোট পুরুষ রোগী, ১৮৬।মোট রোগী নারী, ৫৭।
এই নিয়ে কুষ্টিয়ায় মোট সংখ্যা  ২৪৩, জন করোনায় আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হয়েছে। তারমধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন মোট ৫০ জন। বাকিরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। কুষ্টিয়া জেলায় করোনায় আক্রান্ত কোন রোগী এখন পর্যন্ত মারা যাননি বলে জানা গেছে।
কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন ডা. এ এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম আরোও জানান, সর্বসাধারণের প্রতি অনুরোধ আপনারা আতংকিত না হয়ে সতর্কতা অবলম্বন করুন, ঘরে থাকুন, বিনা প্রয়োজনে ঘরের বাইরে বের হবেন না, বার বার সাবান দিয়ে হাত ধৌত করুন। যত্রতত্র কফ, থুতু ফেলবেন না। হাঁচি, কাশি দেয়ার সময় টিস্যু পেপার, রুমাল, বাহুর ভাঁজ ব্যাবহার করুন ও ব্যাবহৃত টিস্যু ঢাকনাযুক্ত বিনে ফেলুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। একে অপরের থেকে কমপক্ষে ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখুন ও মাস্ক ব্যাবহার করুন।
SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

নগরীতে করোনা টিকার রেজিস্ট্রেশন ও ভ্যাক্সিনেশন কার্যক্রম শুরু হচ্ছে ২৬ জুলাই

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক:রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের উদ্যোগে মহানগরীতে ওয়ার্ড পর্যায়ে করোনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *