Breaking News
Home / অন্যান্য / উন্মুক্ত জনতার কথা / করোনা মহামারীতে, কাজ নেই কর্ম নেই এই সব পরিবারের ত্রাণ না পেয়ে দিশেহারা

করোনা মহামারীতে, কাজ নেই কর্ম নেই এই সব পরিবারের ত্রাণ না পেয়ে দিশেহারা

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার উমর মজিদ ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের বৈশ্বিক করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কবলে ৪০ দিন কাজ নেই, দিন আনা দিন খাওয়া এই খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পরিবার মানবেতর জীবন কাটাচ্ছেন।
দু’একজন বিত্তশালীর দেয়া কিছু চাল ডাল হাতেগোনা কয়েক জন পেলেও সরকারি ত্রাণ এখনো তাদের ভাগ্যে জোটেনি। কুড়িগ্রাম জেলায়, মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে দিন মজুর মানুষগুলো বেকার হয়ে পড়েন, দিন আনে দিন খায় একরকম কয়েক শত শ্রমিক। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জনসমাগম এড়াতে পরিবহনসহ দোকান পাটও বন্ধ করে দেয়া হয়। এ অবস্থায় খেটে খাওয়া মানুষদের জন্য সরকার ত্রাণ সরবরাহের ঘোষণা দিলেও গত ৩৫/৪০ দিনেও তা এসব শ্রমিক পরিবারের হাতে পৌঁছায়নি। তাই উমর মজিদ ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৩ নং ওয়ার্ডের অনেকে অসহায় গরীব দুঃখী মানুষেরা ত্রাণ পায়নি বলে জানা গেছে। যারা খেটে খাওয়া মানুষ তারা অনেক কষ্টে আছে। ১ মাস ১০ দিন হলো কাজ বন্ধ আছে। সরকারের কাছে আবেদন যেকোনো ভাবে হোক আমাদের যেন সাহায্য করে।
রাজারহাট উপজেলার উমর মজিদ ইউনিয়নের ৯ টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৩নং ওয়ার্ডের কিছু অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের চিত্র তুলে ধরায় এ বিষয়ে,
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব মোঃ যোবায়ের হোসেন বলেন, এধরনেরর অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের নাম ঠিকানা এবং মোবাইল নাম্বার পেলে খোজ নিয়ে সহায়তা করার চেষ্টা করব। এরং ৬ নং উমর মজিদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব মোহাম্মদ আলী সরদার বলেন, সরকার থেকে বলা হয়েছিল প্রত্যেক অসহায় গরীব দুঃখী মানুষের জন্য ত্রাণ দেওয়া হবে কিন্তু আমার জানা মতে কেউ বাদ পরেনি, তার পর ও যদি কেউ বাদ পরে থাকে, তাহলে তাদেরকে অতিদ্রুত  ত্রাণ সহযোগিতা করা হবে বলে জানান তিনি।
SK Computer, Godagari, Rajshahi. 01721031894

About জনতার কথা ডেস্ক

Check Also

প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম কে শুভেচ্ছা জানালেন এ কে এম ফয়সাল সরকার

মো.পাভেল ইসলাম নিজস্ব প্রতিবেদক:   রাজশাহী চারঘাট বাঘা (৬) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *